উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে

ফোল্ডেবল ডিভাইস নিয়ে অনেক দিন ধরে কাজ করছে মাইক্রোসফট। এ খবর এখন পুরনো। তবে নতুন খবর হচ্ছে, মাইক্রোসফটের সারফেস ট্যাবে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে!

৯ ইঞ্চির এ ফোল্ডেবল সারফেস ট্যাব নিয়ে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন করেছে ফোর্বস ম্যাগাজিন। কয়েকটি সাপ্লাই চেইন সূত্রের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, পরবর্তী প্রজন্মের সারফেস ট্যাবটি ফোরজি বা ফাইভজিও সমর্থন করতে পারে। ২০২০ সালের প্রথমার্ধেই এটি উন্মোচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। খবর ম্যাশেবল।

তবে ফোল্ডেবল এ সারফেস ট্যাবে কলাপসিবল ডুয়াল স্ক্রিন নাকি ভাঁজযোগ্য নমনীয় ডিসপ্লে থাকবে, সেটি পরিষ্কার নয়। এর আগের এক খবরে জানা গিয়েছিল, মাইক্রোসফট দুটি সম্ভাবনা বিচেনায় রেখেই উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমকে সে অনুযায়ী উপযুক্ত করে তৈরি করার কাজ করছে।

ফোর্বসের প্রতিবেদনে দাবি করা হচ্ছে, হার্ডওয়্যারে তেমন পরিবর্তন না এলেও এ ডিভাইস অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সমর্থন করবে।

এ তথ্যটি নিয়ে জিডিনেটও বিস্তারিত প্রতিবেদন ছেপেছে।

উইন্ডোজে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সমর্থিত ডিভাইস বানানোর ঘটনা মাইক্রোসফটের জন্য বিস্ময়কর পরিবর্তনকেই নির্দেশ করে। ভার্জ পত্রিকা এ ব্যাপারে বলে, উইন্ডোজ ১০-এ অ্যান্ড্রয়েড

অ্যাপ সমর্থন সম্ভব করতে হলে মাইক্রোসফটকে প্রচুর কাজ করতে হবে। এর জন্য গুগল প্লে স্টোরের বাইরে মাইক্রোসফটকে নিজস্ব অ্যাপ স্টোরও বানাতে হতে পারে। গুগল স্টোরে বিদ্যমান ও জনপ্রিয় অ্যাপগুলোকে উইন্ডোজে চালানোর উপযুক্ত করতে ডেভেলপারদের সে অনুযায়ী অপটিমাইজ করতে হবে।

অনেকে ধারণা করছেন, মাইক্রোসফটের নিজস্ব ইউনিভার্সাল উইন্ডোজ প্লাটফর্ম (ইউডব্লিউপি) এ কাজে সহায়তা করতে পারে। প্লাটফর্মটি ব্যবহার করে ডেভেলপাররা ফোন, ট্যাবলেট ও ল্যাপটপে চলে, এমন অ্যাপ বানাতে পারেন। কিন্তু প্লাটফর্মটির সফলতা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কারণ এরই মধ্যে মাইক্রোসফট এ উদ্যোগ থেকে সরে যাচ্ছে।

তবে স্মর্তব্য, মাইক্রোসফট এরই মধ্যে নিজেদের সফটওয়্যারের অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ তৈরি করেছে। পাশাপাশি একটি অ্যাপকে ফোল্ডেবল ডিভাইসের জন্য উপযুক্ত করে তৈরির জন্য একটি স্ট্যান্ডার্ড নির্ধারণের চেষ্টা করছে গুগল। ফলে ধরেই নেয়া যায় ২০২০ সালে প্রযুক্তি দুনিয়া বিস্ময়কর কিছু পরিবর্তন লক্ষ করতে যাচ্ছে!

Sending
User Review
0 (0 votes)