ফটোগ্রাফি থেকে ইন্টারনেটে আয়

ফটোগ্রাফি অনেকের পেশা। শখ আরো বেশিসংখ্যক মানুষের কাছে। বিশ্বের বহুকোটি মানুষ ছবি তোলার শখের কারনে বনে-পাহাড়ে ঘুরে বেড়ান। ডিজিটাল ক্যামেরার এই কাজকে একেবারে সহজ করেছে।

ফটোগ্রাফির শখ ব্যবহার করে ইন্টারনেট থেকে আয় করা যায়। এমনকি একে পেশার বিকল্প হিসেবেও ব্যবহার করা যায়। অনেকেই সেটা করেন।

ডিজিটাল ফটোগ্রাফি ব্যবহার কতভাবে ইন্টারনেট থেকে আয় করতে পারেন জেনে নিন।

.          ছবি বিক্রি করে আয়
কমবেশি সকলেরই ফটোগ্রাফের চাহিদা থাকে। বিভিন্ন ধরনের ডিজাইন থেকে শুরু করে শিল্প মুল্যের কারনেও মানুষ ছবি কেনেন। আপনি দক্ষ ফটোগ্রাফার হলে সেই চাহিদা পুরন করতে পারেন।
ইন্টারনেটে ছবি বিক্রির সেবা দেয়ার জন্য রয়েছে বহু প্রতিস্ঠান। তাদের গ্যালারীতে আপনার ছবি জমা দিতে পারেন। বিক্রি হলে আপনি টাকা পাবেন। কিংবা আপনি নিজেই নিজের ওয়েবসাইট থেকে ছবি বিক্রি করতে পারেন।
ছবি বিক্রি করার নিয়ম হচ্ছে যত ভাল ছবি তত বেশি টাকা। কিংবা বিপরীতভাবে, আপনার ছবির মান এমন হতে হবে যা মানুষ টাকা দিয়ে কিনতে আগ্রহি হবেন। এজন্য প্রয়োজন উচুমানের ক্যামেরা, ফটোগ্রাফি বিষয়ে জ্ঞান এবং ছবি উঠানোর আগ্রহ। সেইসাথে কোন সেবা ব্যবহার করলে সেখানে খরচ কিংবা নিজের সাইট ব্যবহার করলে সেটা দেখাশোনার বিষয়টিও থাকে। পেশাদার দক্ষ ফটোগ্রাফারদের জন্য এই ব্যবস্থা সবচেয়ে কার্যকর।

.          ব্লগ থেকে আয়
আপনি ছবি উঠাতে ভালবাসের কিন্তু ততটা দক্ষ নন। আপনার জন্য আগের পদ্ধতি কার্যকর না হলে নিজস্ব ব্লগে ছবি রেখে আয় করতে পারেন। ছবি বিক্রি করা প্রয়োজন নেই, বিনামুল্যের ব্লগ তৈরী করে সেখানে ছবিগুলি রাখুন। ছবির পরিমান যত বেশি ভিজিটর তত বেশি পাওয়ার সম্ভাবনা। আপনার আয় সরাসরি ছবি থেকে আসবে না, আসবে ভিজিটর থেকে। ব্লগে গুগলের এডসেন্স, ফাষ্ট ২ আর্ন কিংবা এধরনের বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্কের বিজ্ঞাপন রাখুন।  ভিজিটর যত বাড়বে আয় তত বাড়বে।
ব্লগ তৈরী কিংবা ফটোগ্রাফি সম্পর্কে যদি কিছুই জানা না থাকে তাহলেও একাজ করা সম্ভব। সাধারন মানের একটি ক্যামেরা থাকাই যথেষ্ট। ফটোগ্রাফি এবং ব্লগ তৈরীর টিউটোরিয়াল রয়েছে এই সাইটেই।

.          ফটোগ্রাফি বিষয়ক লেখা থেকে আয়
এই মুহুর্তে যদি ফটোগ্রাফিতে দক্ষ নাও হন, ক্রমেই দক্ষতা বাড়াবেন এটাই স্বাভাবিক।  সেজন্য পড়াশোনা করবেন, অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করবেন। একসময় এই জ্ঞানকে ব্যবহার করতে পারেন আয়ের উতস হিসেবে। ফটোগ্রাফি বিষয়ক ব্লগপোষ্ট/আর্টিকেলের বড় ধরনের চাহিদা রয়েছে। সেখানে লিখে আয় করতে পারেন।

.          ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার হিসেবে আয়
ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলি (ফ্রিল্যান্সার বা ওডেস্ক) যদি দেখে থাকেন তাহলে হয়ত চোখে পড়েছে সেখানে ছবি ওঠানোর কাজ রয়েছে। কারো বিশেষ বিষয়ে ছবি উঠানো প্রয়োজন, আপনি ফ্রিল্যান্সা ফটোগ্রাফার হিসেবে সেই ছবি উঠিয়ে দিতে পারেন।

.          গ্রাফিক ডিজাইনে ফটোগ্রাফি ব্যবহার করে আয়
আপনি নিজে গ্রাফিক ডিজাইন হোন অথবা অন্য গ্রাফিক ডিজাইনারের জন্য ছবি সরবরাহকারীই হোন, ফটোগ্রাফি থেকে আয়ের একটি পথ হতে পারে গ্রাফিক ডিজাইন। বর্তমান বিজ্ঞাপনের যুগে প্রায় সমস্ত বিজ্ঞাপনেই ছবি প্রয়োজন হয়। ব্যক্তি, স্থান, প্রকৃতি নানা ধরনের ছবির সংগ্রহ তৈরী করে সেখান থেকে নিয়মিত আয়ের সুযোগ তৈরী করতে পারেন।

এখানে উল্লেখ করা হয়েছে ইন্টারনেট ব্যবহার করে ফটোগ্রাফি থেকে আয়ের কথা। এর বাইরে স্থানিয়ভাবে আয়ের সুযোগ তো রয়েছেই। কারো প্রয়োজনে ছবি উঠানো থেকে শুরু করে ফটোগ্রাফিক ষ্টুডিও, সব ধরনের আয়ের জন্যই ফটোগ্রাফি আপনার একটি বিষয় হতে পারে।

Sending
User Review
0 (0 votes)